যে কারণে পর্যবেক্ষক হিসেবে জানিপপ ও ড. কলিমুল্লাহর বিষয়ে বিএনপির আপত্তি

যে কারণে পর্যবেক্ষক হিসেবে জানিপপ ও ড. কলিমুল্লাহর বিষয়ে বিএনপির আপত্তি

0
SHARE

সময় সংবাদ রিপোর্ট:নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থা জানিপপ ও তার চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ কার্যক্রম থেকে বিরত রাখতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) চিঠি দিয়েছে বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চিঠিতে স্বাক্ষর করেন। বিএনপির প্রতিনিধিদল গতকাল এ চিঠি সিইসিকে দেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল সিইসির সাথে দেখা ও বৈঠক করে এ সংক্রান্ত চিঠি দেন। তারা এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সিইসিকে অনুরোধ করেন।

সিইসিকে দেয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, জানিপপের চেয়ারম্যান বর্তমানে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি। তিনি গত রংপুর সিটি নির্বাচনের সময় এক আওয়ামী লীগ নেতার পক্ষে প্রচারণা চালান। এ ছাড়া, বিভিন্ন টকশোতে আওয়ামী লীগের পক্ষে বক্তব্য দিয়ে থাকেন।

অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ আওয়ামী লীগ নেতা ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীরের ভাগনে।

চিঠিতে বলা হয়, একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে তিনি তার নিরপেক্ষতা ভঙ্গ করেছেন। ফলে তাকে ও তার সংস্থা জানিপপকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব না দেয়ার দাবি জানানো হচ্ছে।

নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থা জানিপপ ও তার চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ কার্যক্রম থেকে বিরত রাখতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) চিঠি দিয়েছে বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চিঠিতে স্বাক্ষর করেন। বিএনপির প্রতিনিধিদল গতকাল এ চিঠি সিইসিকে দেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল সিইসির সাথে দেখা ও বৈঠক করে এ সংক্রান্ত চিঠি দেন। তারা এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সিইসিকে অনুরোধ করেন।

সিইসিকে দেয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, জানিপপের চেয়ারম্যান বর্তমানে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি। তিনি গত রংপুর সিটি নির্বাচনের সময় এক আওয়ামী লীগ নেতার পক্ষে প্রচারণা চালান। এ ছাড়া, বিভিন্ন টকশোতে আওয়ামী লীগের পক্ষে বক্তব্য দিয়ে থাকেন।

অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ আওয়ামী লীগ নেতা ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীরের ভাগনে।

চিঠিতে বলা হয়, একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে তিনি তার নিরপেক্ষতা ভঙ্গ করেছেন। ফলে তাকে ও তার সংস্থা জানিপপকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব না দেয়ার দাবি জানানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY