অভিনন্দনের সাহসিকতায় আমরা গর্বিত: মোদি

অভিনন্দনের সাহসিকতায় আমরা গর্বিত: মোদি

0
SHARE
নরেন্দ্র মোদি। ফাইল ছবি

ডেইলি নিউজ ডেস্ক রিপোর্ট॥ পাকিস্তানে আটক অভিনন্দন ভারতের মাটিতে পৌঁছার পর তাকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে দেয়া টুইট বার্তায় মোদি বলেন, ‘আমাদের উইং কমান্ডার অভিনন্দন! পুরো জাতি তোমার অসীম সাহসিকতায় গর্বিত। ১৩০ কোটি ভারতের প্রেরণায় আমাদের সশস্ত্র বাহিনী।’ শেষে ‘বন্দে মাতারাম’ বলে টুইট শেষ করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্র: ডন, টাইমস অব ইন্ডিয়া, পিটিআই

এর আগে পাকিস্তানে আটক ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দেয় পাকিস্তান। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একটি কনভয়ে শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটার পর ওয়াগা সীমান্তে নিয়ে আসা হয় অভিনন্দনকে।

ভারতীয় বাহিনীর কাছে হস্তান্তরের আগে অভিনন্দনের মেডিকেল চেকআপ করে পাক বাহিনীর মেডিকেল টিম। বিকালের দিকে ওয়াগা সীমান্তে কিছু কুটনৈতিক আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হওয়ার পরই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হল অভিনন্দনকে। খবর ডন ও আনন্দবাজারের।

শুক্রবার সকালে প্রথমে অভিনন্দনকে ইসলামাবাদ থেকে লাহোরে সড়ক পথে নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে বিকাল সাড়ে চারটার দিকে আনা হয় ওয়াগা-আতারি সীমান্তে।এ সময় ভারতীয় হাইকমিশনের অ্যাটাশে জে টি ক্যুরিয়েন অভিনন্দনের সঙ্গে ছিলেন।

অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে এয়ার ভাইস মার্শাল আর জি কে কপূরসহ সেনা ও এয়ারফোর্সের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সকালেই সীমান্তে পৌঁছে যান অভিনন্দনের বাবা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান।

পাকিস্তানের কাস্টমস বিভাগে প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতীয় সময় ৫টা ২০ মিনিটের দিকে অভিনন্দন ভারতের মাটিতে পা রাখেন। অভিনন্দনের মুক্তির ঘটনায় কিছুক্ষণের মধ্যে বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করার কথা রয়েছে। তিনি নিজেও মিডিয়ার সামনে হাজির হতে পারেন, বিভিন্ন অসমর্থিত সূত্রের বরাতে জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম।

শুক্রবার সকালে ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যান। সেখানে যাবতীয় কুটনৈতিক আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

এর আগে অভিনন্দনের জন্য একটি বিশেষ ফ্লাইট পাঠাতে চেয়েছিল ভারত। কিন্তু পাকিস্তানের তরফ থেকে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়। পাকিস্তান জানিয়েছিল- তারা সড়কপথেই অভিনন্দনকে ফেরত পাঠাবে।

ভারতের সীমান্ত এলাকায় অভিনন্দনকে বরণ করে নিতে হাজারো ভারতীয় জড়ো হয়েছেন। ভারতের তিন বাহিনীর কর্মকর্তাদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও যোগ দিয়েছেন এই আনন্দ উৎসবে।

দুই দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আটক ভারতের পাইলটকে মুক্তি দিচ্ছে পাকিস্তান। বৃহস্পতিবার পাক ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে এমন ঘোষণা দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাইলটকে মুক্তির কারণ হিসেবে ইমরান খান বলেছেন, শান্তির বার্তা দিতেই ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়া হচ্ছে। তবে তিনি এও হুশিয়ারি দেন যে, পাইলটের মুক্তির সিদ্ধান্তকে পাকিস্তানের দুর্বলতা ভাববেন না।

LEAVE A REPLY