শেহনাজ হেনার দু’টি কবিতা

শেহনাজ হেনার দু’টি কবিতা

0
SHARE

আজ এক থোকা গোলাপ

আমায় কি এনে দেবে এক থোকা গোলাপ ?
লাল গোলাপ! বুকের ভেতর সুগন্ধি ছড়াবে,
কথা দিলাম আমি যত্ন করে রাখবো সে ফুল
আমার বুকের মাঝে চেপে তোমায় মনে করে!!

দূর গগনে উঠবে চাঁদ হাসবে তারা
পবন যাবে পাখির গানে-
বলবে তোমায়, ঐ যে দেখ-
দূর বাতাসে উড়ে আসে কোন সে আঁচল ?
বলবো হেসে কিছুই না বলে, গোলাপথোকা,
শুনবে কি তুমি ঝিনুক বুকের লুকানো গল্প?
তুমি একটু একটু গন্ধ দেবে একটু একটু ঝিনুক খুলবে-
লুকোনো গল্পের নীলাভ পর্দা !!

বল, আমায় এনে দেবে একথোকা গোলাপ?
লাল গোলাপ!!
আমি চেপে রাখবো আমার বুকের গভীরে-
ভালবাসার আঁচল ঢেকে ।
সুগন্ধি ছড়াবে যখন আমার তুলি –
আঁকবে তোমার ছবি! আমার প্রিয়তমের ছবি!
সেই কবে থেকে এঁকেই যাই, হয়না তো শেষ –
ভাবি , কেমন তোমার চেহারা দেবো আকারে , অবয়বে –
কোনভাবেই পারিনা- আমি যেমনটা চাই !!
আসেনা সে-ই অবয়ব যেমনটা স্বপ্ন দেখি –
আঁকবো বলে — আমার ভালবাসা ছবি !!

আচ্ছা, বলতো, আমি কি প্রাচীন গ্রীক
রুপকথার প্রেমের দেবতার চোখ দুটো দেব?
আমি কি মহাভারতের কৃষ্ণের হাসিটা নেব?
নাকি আমি জুলিয়াস সিজারের দৃঢ়তা এঁকে দেব-
তোমার চোয়ালে না কি যিশুর মুখের নিস্পাপ –
সারল্যে এঁকে নেব তোমার মুখে ??
জানি না তো! কেমন করে আঁকবো আমি
আমার স্বপ্নের তোমার মুখচ্ছবি !?

জানি আমি , এমনি করেই যাবে দিন
আঁকা হবেনা আর প্রিয়তমের মুখখানি !
বরষ যাবে বরষ আসবে অধরা রবে-
চিত্র আঁকার আমার তুলিখানি!!
আচ্ছা বলতো আমি কি সার্থক শিল্পী হতে পারিনি?
আমি কি আজো সার্থক তপস্বী প্রেমিকা হতে পারিনি ?
কেন সহস্র বছর পার হয়ে আজো আঁকতে পারিনি
একটি অবয়ব, তোমার !?

আজ এক থোকা গোলাপ দেবে কি আমায় ?
সুগ্নিধ ছড়াবে আমার বুকের গভীরে-
দেখে নিও এবার ঠিক ঠিক
অবয়ব দেবো তোমায়-
হাজার বছর ধরে কল্পনার আবীর মেখে
একটু একটু করে সৃজিছি যেমন তোমায়!!

বই হাতে কবি শেহনাজ হেনা

পাহাড়ি নেফারতিতি

দু’পাহাড়ের বুক চিরে বের হয়ে আসো উর্বশী নেফারতিতি,
ঘাড় ঘুরিয়ে হেঁটে যাও পাহাড়ের ঢাল ধরে….
পথে পথে ফেলে যাও যৌবনের রঙিন ওড়না।
উদভ্রান্ত রাখাল আমি, মন বসেনা আর মেষ চারণে,
অস্থির চরণ কেবলই ভুলে যায় নদীর ধার-
মেষশাবকের দল জলকেলি করে আপনমনে
বুঝে রাখালিয়ার উচাটন মন ।

রাখালিয়া আমি, খোঁজি হন্যে হয়ে বাজিয়ে বাঁশি উতলা সুরে –
কোথায় যাও চপলা পাহাড়ী নেফারতিতি গ্রীবা বাঁকিয়ে?
দৃষ্টি পাগলপ্রায় অচেনা অনুসন্ধিৎসায় রাখালিয়া আকাশে তোলে
আওয়াজ নেফারতিতি …… নেফারতিতি….
পাহাড়ি মেয়ে, খুঁজি তোমায় বাঁশির সুরে…

কোথায় যাও রহস্যময় চাহনীর আবীর মেখে
হৃদয়ে অচেনা অনুভূতির ঢেউ তুলে
বলে যাও বলে যাও….
দূর পাহাড়ের কালো জালে নেফারতিতি হাসে, হায় মনুষ্য!
মনুষ্য রাখালিয়া, কতো বোকা তুমি??

LEAVE A REPLY