নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে বিজেপি

নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে বিজেপি

0
SHARE

ডেইলি নিউজ ডেস্ক রিপোর্ট॥ ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ২০১৯ সালে অনুষ্ঠেয় লোকসভা নির্বাচনের ইশতেহার ঘোষণা করেছে। জনগণের প্রত্যাশা পূরণের ৭৫টি অঙ্গীকার সম্বলিত সংকল্প পত্র (সুপারিশমালা)- শীর্ষক এই ইশতেহারটি তুলে ধরেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং।
সোমবার ঘোষিত এই ইশতেহারে, কৃষক কল্যাণ, নাগরিকত্ব বিল, রাম মন্দির, ইউনিফরম সিভিল কোড, সীমান্ত নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদের ক্ষেত্রে শূণ্য সহিষ্ণুতা নীতিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।
রাজধানী নয়াদিল্লিতে এই ইশতেহার ঘোষণাকালে বিজেপি’র পার্লামেন্টারি বোর্ডের সদস্য ও দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দলীয় প্রধান অমিত শাহ উপস্থিত ছিলেন।
আজ বিজেপি ঘোষিত ইশতেহারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, আগামী ৪ বছরে ১৪ টি চেক- পোস্ট-এর কাজ সমাপ্ত হলে বাংলাদেশ, নেপাল এবং ভূটানের সকল বাণিজ্য চেকপোস্টের আওতাভুক্ত হবে।
তিনি বলেন ,তার দল উন্নয়নের প্রতি লক্ষ্য রাখবে এবং দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির লক্ষ্যে সীমান্ত এলাকার নিরাপত্তা জোরদার নিশ্চিতএবং অংশগ্রহনে সক্ষম করে তোলায় এবং অন্যান্য অবকাঠামোগুলোকে শক্তিশালী করে তুলবে।
ইশতেহারে বলা হয়, বৈদেশিক নীতিমালা অনুসারে, বিজেপি সরকার বিআইএমএসটিইসি-এর মতো ব্যাপক প্রভাবশালী ফোরাম যারা বিভিন্ন দেশ ও প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে আঞ্চলিক সমন্বয় সাধন ও অর্থনৈতিক সহযোগী সে সব ফোরামসমূহের মাধ্যমে ভারতের ‘ নেইবারহুড ফার্ষ্ট ’ নীতি অবলম্বন করবে।
ইশতেহারে অঙ্গিকার করা হয় যে, বিজেপি নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় ফিরে এলে, সিটিজেন শীপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিলের উত্তরণ নিশ্চিত করবে।
এই বিল ভারতের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে বিতর্কিত জাতীয় নাগরিকত্ব রেজিস্টেশন সমাপন ও পুনরায় সীমান্ত নিরাপত্তা জোরদারের মাধ্যমে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীর বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ায় অঙ্গিকারাবদ্ধ।

LEAVE A REPLY